Independent Day of Bangladesh
Find Visa Offers
Visa type
Country

Visa Offers

নিচের ভিসা অফার ডিটেইলস দেখতে FIND MORE বাটনে ক্লিক করে ভেতরে যান ও ভিসার জন্য আবেদন করুন

No Visa Offers Found !


Featured Visa

কানাডা স্কুলিং ভিসা (ফ্যামিলি ভিসা)

FIND MORE

Agent VA-0101, Dhaka , Country Canada, Cost ৩ লাখ

কানাডা স্কুলিং ভিসা এই ভিসা সম্পর্কে কিছুটা বলে রাখি। এই ভিসা এখনও পর্যন্ত রিফিউজ হচ্ছেনা। এটা সেই সকল ছাত্র ছাত্রীদের জন্য যারা কেজি১ থেকে দশম শ্রেনীতে পড়ছে। এরা এখান থেকে ট্রান্সফার নিয়ে কানাডার যেকোন স্কুলে ভর্তি হবে। তারপর ভিসার জন্য দাঁড়াবে। এই ভিসায় এখন পর্যন্ত রিফিউজ হিস্টোরী নেই। এখানে ছাত্র ছাত্রীর সাথে বাবা ও মা ভিজিট ভিসা পাবেন কানাডার। তবে স্টুডেন্টকে অবশ্যই ১৮ বছরের নিচে হতে হবে। এদের লাগবেনা IELTS রেজাল্ট, লাগবেনা ইংরেজী দক্ষতা। কানাডাতে পরিবারসহ যাবার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো এই ভিসা। বাবা ও মায়ের যোগ্যতাঃ যেহেতু বাবা বা মা স্টুডেন্টের সাথেই ভিজিট ভিসা পাবেন তাই তাদের আর্থিক ব্যপারটা অগ্রগন্য। বাবা বা মায়ের এ্যাকাউন্টে ন্যুনতম ৩০ লাখ টাকা থাকতে হবে। এবং আয় ব্যয়ের কাগজপত্র থাকতে হবে অর্থাত টাকা কিভাবে আয় হলো তার প্রমানপত্র যাকে বলা হচ্ছে স্টেটমেন্ট অব ফান্ড। এর মধ্যে আপনার ব্যাংক সাপোর্ট ছাড়াও রয়েছে ব্যবসায়ের কাগজপত্র ও অন্যান্য সাপোর্টিভ পেপারস। এগুলো অবশ্য খুব সহজেই পাবেন। এজেন্টও সাহায্য করতে পারবে এই ক্ষেত্রে। জেনুইন ব্যাংক সাপোর্ট দিতেও পারেন তারা। আবেদন ও ভিসা প্রক্রিয়াঃ সে যাই হোক, আপনার যদি সব পেপারস থাকে তবে আপনি কানাডার স্কুলে আবেদন করতে পারেন। স্কুল আপনার কাছ থেকে প্রাথমিক খরচ হিসাবে ৪০০ থেকে ৪৫০ কানাডিয়ান ডলার নেবে। তারপর আপনাকে একটি অফার লেটার পাঠাবে। এটি কন্ডিশনাল অফার লেটার। অনেক ক্ষেত্রে স্কুলকে অগ্রিম টিউশন ফি পাঠাতে হয়। এটি সাধারনতঃ দশ থেকে ১১ লাখ টাকা হয়। এটি আপনি আপনি ব্যাংক টু ব্যাংক ট্রান্সফার করতে পারবেন। তবে বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে আমরা আপনাকে ভিসার পর টিউশন ফি পে করার সুজোগ করে দিতে পারি। এরপর আপনি অনলাইনে ভিসা ফি পে করে কানাডা ভিসার আবেদন করবেন। স্টুডেন্ট স্কুলিং ভিসার জন্য আবেদন করবে। মা বাবা ভিজিট ভিসার জন্য আবেদন করবে। স্কুলিং ভিসার এ্যামবাসি ফি ২১০০০ টাকা (ভিসা ফি ও এক্সপ্রেস)। ভিজিট ভিসার জন্য এ্যামবাসি ফি ৮ হাজার টাকা। ৯৯% ক্ষেত্রে আপনারা সবাই ভিসা পাবেন। আমরা এই ভিসা রিফিউজ হতে দেখিনি। এটি জানুয়ারী ও মার্চ সেমিস্টারের স্কুলিং ভিসা। তবে কানাডার স্কুলে নিচের শ্রেনীগুলোতে ভর্তির সময় অনেকটা শেষের দিকে। ভিসা হয়ে যাবার পর আপনি ফ্লাই করতে পারবেন। ঢাকা থেকে ফ্লাইট হবে। ভিসার পর আপনাকে ভিসা এজেন্টের সার্ভিস চার্জ প্রদান করতে হতে পারে। আপনি যদি ভিসার আগে টিউশন ফি পে করেন তবে সেটা হবে দুই লক্ষ টাকার মতো। যদি ভিসার পরে টিউশন ফি পে করেন তবে ভিসার পর দিতে হবে তিন লক্ষ টাকার মতো। জানুয়ারী সেমিস্টারে কানাডার স্কুলে ভর্তি হতে চাইলে আপনাকে এখনই ফাইল দিতে হবে। (কানাডা স্কুলিং ভিসার জন্য আপনার মেম্বার হয়ে আবেদন করার প্রয়োজন নেই।)